প্রতিদিন লিখি প্রাণের ভাষায়, বাংলা আর্টিকেল পোর্টাল

একজন প্রকৃত নেতা আবেগপ্রবণ কিংবা ভোগবিলাসী হতে পারেনা

প্রকৃতপক্ষেই যিনি একজন নেতা, জীবনের কোন পর্যায়েই তার খুব বেশি আবেগপ্রবণ কিংবা ভোগবিলাসী হওয়ার সুযোগ নেই। একজন সত্যিকারের নেতা হওয়ার জন্য সূচনালগ্নে যেমন দায়িত্ব নিয়ে প্ররিশ্রম করতে হয়, পরিকল্পনা সাজাতে হয়, ব্যবস্থাপনা করতে হয় এবং ক্রমবর্ধমান অগ্রগতি নিশ্চিৎ করতে হয় যখন সেই উদ্যোগটি ভারসাম্যে পৌঁছায় এবং প্রতিষ্ঠা পায় তখনও তা ধরে রাখার জন্যও একইভাবেই কাজ করে যেতে হয়।

একজন নেতাকে কখনো শ্রমিক,মালিক,অভিভাবক,শুভাকাঙ্খী,মেন্টর,বন্ধু এমন কি শত্রুও হতে হয়। তাই একজন নেতা হিসেবে আমাকে যদি কোন কাজ করতেই হয়, আমি একজন দক্ষ শ্রমিকের মতোই কাজ করবো। আমাকে যদি কোন পরিকল্পনা সাজাতে হয় সবচেয়ে উপরের চেয়ারে বসে আমি চিন্তা করবো। যদি জুনিয়রদেরকে উৎসাহ এবং সঠিক পথ প্রদর্শন করতে হয় আমি তাদের অভিভাবক হয়ে ওঠার চেষ্টা করবো।

প্রশংসা করার পূর্বে আমি তাদের শুভাকাঙ্খী হবো। ভুল ধরার জন্য আমি শত্রু হবো। বিজয়ী করার জন্য আমি তাদের মেন্টর হবো আর সহযোগিতা করার জন্য এবং সর্বদা পাশে থাকার জন্য আমি বন্ধু হবো।

একজন প্রকৃত নেতা হয়তো এভাবেই কাজ করেন।

অনেকেই উদ্যোক্তা হয়ে উঠতে চান। একজন উদ্যোক্তা হয়ে ওঠার জন্য ব্যবসা সম্পর্কে জানাটা যতটা জরুরী তারচেয়ে অনেক বেশী জরুরী একজন আদর্শ নেতার গুণাবলী অর্জন করা। প্রত্যেক উদ্যোক্তাকেই তার প্রথম জীবনে শ্রমিকের মতো কাজ করতে হয়, একটা টিম তৈরি করতে হয়, টিমের আদর্শ ও লক্ষ্য নির্ধারণ করে সদস্যদেরকে সেই লক্ষ্য বাস্তবায়নে কাজ করে যেতে হয়।

টিমওয়ার্ক কতটা ভাল হবে তা নির্ভর করে দলনেতার দক্ষতা, বিচক্ষণতা এবং কৌশলের উপর। হয়তো একজন নেতার  দু:খ-কষ্ট  বাকী সদস্যরা বুঝতে পারেনা, কিন্তু একজন প্রকৃত   নেতাকে তার টিমের সকল সদস্যদের ভাল-মন্দ সম্পর্কে জানতে হয় এবং সে অনুযায়ী পদক্ষেপ নিতে হয়।

একজন প্রকৃত নেতা সারা জীবনই নেতাই থাকেন, তাকে সব সমস্যা জানতে হয়, সমাধান করতে হয়। ঠিক তখনই একজন নেতা খুশি হতে পারেন যখন তার সহযোগীদের সার্বিক প্রচেষ্টায় এমন কোন উপলক্ষ্য তৈরি হয় যেখানে সবাই নিজেদের জয়ী মনে করতে পারেন এবং তাদের নেতাকে তা উৎসর্গ করেন।

প্রত্যেক উদ্যোক্তাই এক একজন নেতা। যদি জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত নতুন নতুন চ্যালেঞ্জকে স্বাগত জানানোর মতো মানষিকতা তৈরি করতে পারো তাহলে একজন নেতা কিংবা একজন উদ্যোক্তা হয়ে ওঠার চেষ্টা করো অার যদি ঝামেলাহীন সহজ সমীকরণে বাধা একটা জীবন পেতে চাও তাহলে ভাল রেজাল্ট আর ভাল চাকরিই হয়তো  উপযুক্ত সমাধান।